skip to Main Content

সেলুলয়েড I স্বপ্নজাল

পরিচালক ও চিত্রনাট্য : গিয়াস উদ্দিন সেলিম
প্রযোজক : আবুল খায়ের
অভিনয় : পরীমনি, ইয়াশ রোহান, ফজলুর রহমান বাবু, শহীদুল আলম সাচ্চু
সংগীত : রশীদ শরীফ শোয়েব
মুক্তিকাল : ৬ এপ্রিল ২০১৮
দৈর্ঘ্য : ১৪৭ মিনিট

গিয়াস উদ্দিন সেলিমের সাম্প্রতিক নির্মাণ স্বপ্নজাল। এর আগে তাঁর প্রথম ছবি মনপুরা দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছিল। মনপুরা আর স্বপ্নজালের মধ্যে সময়ের ব্যবধান ৯ বছর। এ জন্যই ছবিতে স্পষ্ট পরিণতির ছাপ। মোটা দাগে স্বপ্নজাল একটি প্রেমের গল্প।
গল্পের বুনন, নির্মাণ কৌশলের পাশাপাশি চরিত্রদের বাস্তবানুগ করে তোলায় বিশেষ ভূমিকা রাখে পরিচ্ছদ ও সজ্জা। এ ক্ষেত্রেও তার ব্যত্যয় ঘটেনি।
ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্র শুভ্রা ও অপু। চিত্রণ করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমনি ও অভিষেক হওয়া ইয়াশ রোহান। এ ছাড়া আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র আয়নাল গাজী। এই ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু। এই চরিত্রের জন্য এমন একজনকে প্রয়োজন ছিল যিনি সুস্থ মানুষ থেকে ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে ভেঙে পড়বেন। এ জন্যই বাবুকে নেয়া বলে জানিয়েছেন পরিচালক।
অন্যদিকে স্বপ্নজাল ছবির মেকআপ নিয়ে সরাসরি কথা হয় মেকআপ আর্টিস্ট রবিন আহমেদের। তিনি দীর্ঘ দুই দশক ধরে বাংলাদেশের টেলিভিশন বিজ্ঞাপন ও চলচ্চিত্র উভয় মাধ্যমে সমানভাবে দক্ষতার সঙ্গে কাজ করে আসছেন।
পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিমের কারণেই পূর্ণ স্বাধীনতা নিয়ে তিনি চরিত্রগুলো ফুটিয়ে তুলতে পেরেছেন। সচরাচর পরীমনিকে দর্শক গ্ল্যামারাস লুকে দেখতে অভ্যস্ত। কিন্তু স্বপ্নজালে শুভ্রাকে দেখা যায় নিতান্তই সাধারণ সাজে। ন্যাচারাল লুকে। মেকআপ আর্টিস্ট হিসেবে এটা তাঁর জন্য চ্যালেঞ্জ ছিল। তবে পান্ডুলিপি পাওয়ার পর প্রতিটি চরিত্রকে সময় নিয়ে ভেবেছেন বলেও জানান। আয়নাল গাজী চরিত্রে তার মেকআপ প্রেরণা হয়েছে নদীপারের মানুষ। আয়নাল একজন মোটাসোটা মানুষ। একটি অন্যায়ের অভিশাপে ধীরে ধীরে সে অসুস্থ হয়ে ক্ষীণকায় হতে থাকে। ফলে মেকআপ ও কস্টিউমে সেই পরিবর্তনকে দৃষ্টিগোচর করে তুলতে হয়েছে বাস্তবানুগভাবে।
কস্টিউম ডিজাইনার মুক্তার ও রবিন আহমেদ আলোচনা করেই এ কাজ সম্পন্ন করেন। এই চরিত্রের জন্য তারা একটি বিশেষ এয়ার স্যুট তৈরি করেন, মোটা থেকে রোগা হওয়া আয়নাল গাজীকে ফুটিয়ে তোলার জন্য। আয়নাল গাজীকে পুরো ছবিতে দেখা যায় খাকি পাঞ্জাবি বা ফতুয়া আর পায়জামায়, মাঝে মাঝে পাঞ্জাবির সঙ্গে কোট পরতে।
অপু (ইয়াশ রোহান) সাধারণ মুসলমান ছেলে। চুল এলোমেলো, হালকা গোঁফ-দাড়ি, টি-শার্ট, জিনস ও চেক শার্টে সাবলীল। মফস্বলের ছেলে অপুর লুকে এই বিষয়গুলো লক্ষণীয়।
অন্যদিকে পরীমনি (শুভ্রা) হিন্দু মেয়ে। ফলে লক্ষ্মীপ্রতিমার মুখাবয়বই শুভ্রার লুকবুক হয়েছে। পরীমনির চুল, ভ্রু ইত্যাদিকে এই চরিত্রের উপযোগী করে তোলা হয়। তাকে বেশির ভাগ সময়ে দেখা যায় সাদা ও নীল রঙের পোশাকে। বাটিক প্রিন্ট বেশি ব্যবহার করা হয়েছে। সালোয়ার-কামিজই ছিল তার মূল পোশাক। তবে কলকাতায় গেলে শুভ্রা পরেছে স্লিভলেস টপস ও লং স্কার্ট। যদিও পোশাক আর মেকআপে খুব বেশি বৈচিত্র্য হয়তো ছিল না চরিত্রের কারণে।

 তানজীনা এফ খান মুনিয়া
লেখক: কস্টিউম ডিজাইনার, কো-ফাউন্ডার
কস্টিউম সিলুয়েট/অনকোর ক্রিয়েশনস

কুইজ
১. সিনেমায় শুভ্রার চরিত্রে কে অভিনয় করেছেন?
ক. জয়া আহসান খ. পরীমনি গ. নুসরাত ফারিয়া
২. স্বপ্নজাল সিনেমায় কোন নদীর দৃশ্য চিত্রায়ণ করা হয়েছে?
ক. ডাকাতিয়া খ. যমুনা গ. পদ্মা
৩. সিনেমাটির কাহিনি কে লিখেছেন?
ক. মোস্তফা সরয়ার ফরুকী খ. গিয়াস উদ্দিন সেলিম গ. নূরুল আলম আতিক

গত সংখ্যার বিজয়ী

১. অমিত হায়দার, বাড্ডা, ঢাকা।
২. তাসনিম জান্নাত, উত্তরা, ঢাকা।
৩. মাশিয়াত, ফুলবাড়ী, খুলনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top